বিশে হত্যা, তেইশে আসামি ধরা

25

স্টাফ রিপোর্টার : অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তিকে হত্যার পর মরদেহ গুম করার উদ্দেশ্যে বস্তায় করে তা ভাসিয়ে দেওয়া হয় বুড়িগঙ্গা নদীতে। পরে নদীতে পাওয়া যায় বস্তাবন্দি মরদেহ।

এই হত্যায় দায়ের হওয়া মামলার আসামি করিম ওরফে ডালিমকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় র‍্যাব-১০ এর অধিনায়ক (সিও) অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আসামিকে গ্রেফতারের পর অজ্ঞাতনামা ভুক্তভোগীর নাম-পরিচয় জানতে পারে র‍্যাব। হত্যার শিকার ভুক্তভোগী হলেন আসলাম ওরফে আসলাম শেখ (৩৫)। তিনি যশোর জেলার চৌগাছা থানার পশ্চিম কারিগর পাড়া এলাকার মৃত নান্নু মিয়ার ছেলে।

র‍্যাব-১০ অধিনায়ক জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার রাতে পল্টন কমিউনিটি সেন্টারের সামনে অভিযান চালিয়ে আসামি করিম ওরফে ডালিমকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে একটি মোটরসাইকেল, একটি মোবাইল ফোন ও নগদ এক হাজার ১৭০ টাকা জব্দ করা হয়।

তিনি জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার আসামি ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছেন।

ঘটনার বিষয়ে র‍্যাবের এই কর্মকর্তা জানান, ২০২০ সালের ৫ জুলাই হাসনাবাদ নৌ পুলিশ ফাঁড়ির একটি দল পোস্তগোলা ব্রিজের দক্ষিণে বিআইডব্লিউটিএর ভাসমান ডকইয়ার্ডের পাশে বস্তাবন্দি একটি মরদেহ পায়।

মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। পরে নৌ পুলিশ বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

র‍্যাব কর্মকর্তা জানান, ভুক্তভোগীকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। মরদেহ গুম করার উদ্দেশ্যে তা বস্তাবন্দি করে বুড়িগঙ্গা নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয় বলে ধারণা ছিল নৌ পুলিশের।

গ্রেফতার আসামিকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।