বছরে ২০-২৫ হাজার কোটি টাকার ভোজ্য তেল আমদানি করতে হয় : সিংগাইরে কৃষিমন্ত্রী

35

মাসুম বাদশাহ, সিংগাইর (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি : কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, বছরে আড়াই বিলিয়ন ডলার অর্থাৎ ২০-২৫ হাজার কোটি টাকার ভোজ্য তেল আমদানি করতে হয়। চাহিদার ১০ভাগ দেশের সরিষার ও পামওয়েল উৎপাদন থেকে আসে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সরিষা উৎপাদন বাড়ানোর কাজ চলছে। সেভাবেই আমাদের দেশের বিজ্ঞানীরা ট্ররি-৭ ও বারি-১৮ জাতের সরিষা আবিস্কার করেছেন। যার ফলন ৮-৯ গুণ বেশি। সোমবার (১৬ জানুয়ারী) সকাল সাড়ে ১০ টারদিকে মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার বায়রা ইউনিয়নের শিবপুর এলাকার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কৃষি মন্ত্রী আরও বলেন, কৃষিকে বাদ দিয়ে কোন উন্নয়নই সম্ভব নয়। দেশে এখনও ৬০-৭০ ভাগ মানুষ কোনো না কোনোভাবে কৃষির সাথে জড়িত। ৪০ ভাগ মানুষ সরাসরি কৃষির উপর নির্ভরশীল। তিনি আরও বলেন, আমরা খাদ্য উৎপাদনে স্বয়ং সম্পূর্ণ হলেও প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে সামান্য পরিমাণ গম আমদানি করতে হয়। অর্থনৈতিক বিবেচনায় কৃষির গুরুত্ব অনেক। কৃষক মানে নোংরা জামা-কাপড় পড়বে সে ধারণা ভুল। কৃষি দিয়েই সবকিছু পরিচালিত হয়।

মন্ত্রী বলেন, দেশে সরিষার চাষে গুরুত্ব দিয়ে ভোজ্য তেলের চাহিদার ৫০ ভাগ মেটানোর চেষ্টা চলছে। এর জন্য বিশ^াস, দৃঢ়তা ও সাহস নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। আগামীতে যমুনা ও ধলেশ^রী নদীর তীরে অবস্থিত মানিকগঞ্জ জেলাকে সরিষা চাষের মডেল হিসেবে দেখতে চান কৃষি মন্ত্রী।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব ওয়াহিদা আক্তারের সভাপতিত্বে ও জেলা কৃষিকর্মকর্তা আবু মো. এনায়েত উল্লাহর পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন-জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ, কৃষি মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক বাদল চন্দ্র বিশ^াস, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিয়োদ্ধা অ্যাড, আব্দুস সালাম, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুশফিকুর রহমান খান হান্নান, কৃষাণী রোজিনা আক্তার ও কৃষক আতিক প্রমুখ।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সমুন সাহা, উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিপন দেবনাথ, সিংগাইর সার্কেলের এএসপি আব্দুল্লাহ আল ইমরান, কৃষি কর্মকর্তা টিপু সুলতান সপন, ওসি সফিকুল ইসলাম মোল্যা, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোসা. শারমিন আক্তার, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সায়েদুল ইসলামসহ সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে কর্মকর্তা ও আওয়ামী লীগের অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেত্রীবৃন্দ।