প্রকৌশলী ইনামুলকে লাঞ্ছিত করা ব্যক্তি কৃষক লীগের নেতা

22

 

নিজ দলের পক্ষে প্রচারপত্র বিতরণ করতে গিয়ে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত ও হামলার শিকার হয়েছেন দেশের প্রবীণ প্রকৌশলী ম ইনামুল হক। তাঁর সঙ্গে যে ব্যক্তি এমনটা করেছেন তাঁর পরিচয় পাওয়া গেছে। তাঁর নাম বানি আমিন। তিনি মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কাজিপুর ইউনিয়নের বেতবাড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা ও ইউনিয়ন কৃষক লীগের সভাপতি।

গত শনিবার বিকেল পাঁচটার দিকে রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে প্রকৌশলী ম ইনামুল হককে লাঞ্ছিত করার ঘটনা ঘটে।

আজ সোমবার সকালে বেতবাড়িয়া গ্রামে বানি আমিনের সঙ্গে কথা হয়। ওই ঘটনা বিষয়ে তাঁর ভাষ্য, আওয়ামী লীগের কাউন্সিলে কৃষক লীগের পক্ষ থেকে তিনি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন। পথে এক প্রবীণ ব্যক্তি আওয়ামী লীগের সভাপতির বিরুদ্ধে বিষোদ্‌গার করছিলেন দেখে রাগে তিনি তাঁকে লাঞ্ছিত করেন। বিষয়টি নিয়ে তিনি এখন লজ্জিত।

জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াসিম সাজ্জাদ বলেন, ‘বানি আমিন কৃষক লীগ করার আগে ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ছিলেন। চলতি বছর কৃষক লীগের কাউন্সিলে তাঁকে কাজিপুর ইউনিয়ন সভাপতি নির্বাচিত করা হয়েছে।’

বানি আমিনের গ্রামের একাধিক ব্যক্তির কথা হয়। তাঁরা বলেন, বানি আমিন ও তাঁর তিন ভাই কৃষিকাজ করেন। এক শ বিঘার বেশি কৃষি জমি আছে তাদের। মেহেরপুর পৌর শহরের হোটেল বাজার সড়কে তাদের তিনতলা বাড়ি।

কাজিপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আলম হোসাইন বলেন, ‘বানি আমিনের বিরুদ্ধে এলাকায় তেমন কোনো অভিযোগ শোনা যায়নি। তিনি ঢাকাতে যে কাজ করেছেন তা একেবারে অপ্রত্যাশিত।’