পদ্মা সেতু দিয়ে রেল চলবে জুনে

28

রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন জানিয়েছেন, আগামী জুন মাসের মধ্যে ঢাকা থেকে পদ্মা সেতু হয়ে ফরিদপুরের ভাঙা পর্যন্ত রেল যোগাযোগ চালু হবে। এছাড়া আখাউড়া থেকে আগরতলা পর্যন্ত রেলপথও এ সময়ের মধ্যে চালু হবে।

সোমবার(৯ জানুয়ারি) জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনিত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, দেশের দক্ষিণ-পশ্চিম ও উত্তরাঞ্চলের সঙ্গে রেল যোগাযোগ দ্রুত শেষ করা ও ওইসব এলাকায় উন্নয়নের লক্ষ্যে পদ্মা সেতু রেল সংযোগ ও দ্বিতীয় বঙ্গবন্ধু সেতুর কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে। এর ফলে তিনটি নতুন জেলা রেল নেটওয়ার্কে যুক্ত হবে। আমরা আশা করছি, আগামী জুন মাসে ঢাকা থেকে পদ্মাসেতু দিয়ে ভাঙা পর্যন্ত রেল চলাচল সম্ভব হবে। এছাড়া আখাউড়া থেকে আগরতলা পর্যন্ত রেলপথও আগামী জুনে চালু করা সম্ভব হবে।

এ সময় তিনি আরও বলেন, এসব রেলপথ চালু হলে জিডিপি ১ শতাংশ বাড়বে। পর্যায়ক্রমে ঢাকা থেকে কক্সবাজার, রামু হয়ে ঘুনদুম পর্যন্ত রেল চলতি বছরের জুনে চলাচল করবে, সে লক্ষ্যে কাজ এগিয়ে চলছে। এছাড়া খুলানা থেকে মংলা পোর্ট, আখাউড়া থেকে লাকসাম পর্যন্ত রেলপথ নির্মান দ্রুত এড়িয়ে চলেছে। খুলনা থেকে মংলা পর্যন্ত রেলপথ চালু হলে সরাসরি ঢাকা থেকে মংলা বন্দর রেলপথে সংযুক্ত হবে।

মন্ত্রী দেশের রেলপথ সম্প্রসারণ ও উন্নয়নের বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরে বলেন, যোগাযোগ ব্যবস্থাকে আধুনিকায়ন ও যুগোপযোগী করার ওপর বর্তমান সরকার অগ্রাধিকার দিয়েছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা ক্ষমতায় এসে রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ এবং জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন অভিলক্ষ্য ২০৩০’ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে রেলওয়ের কার্যক্রম এগিয়ে যাচ্ছেন। ৩০ বছর মেয়াদী উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা রেলওয়ে মাস্টার প্লান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহারে স্থান পেয়েছে।