নীতিহীন রীতি

12
যার পেটে ক্ষুধা নেই তারে দাও ঢেলে
ক্ষুধায় কাতর জনে দেখে চোখ মেলে।
যার ঘরে জামা-শাড়ি আছে কাঁড়ি কাঁড়ি
ঈদ এলে ফের তারে দাও নয়া শাড়ি।
ছিন্ন বস্ত্র পরে যার লজ্জা ঢাকা দায়
তারে দেখে বস্ত্র যেন নিজে লজ্জা পায়।
যার টাকা ভুরি ভুরি তারে দাও ধার
যার নেই কানাকড়ি তারে তিরস্কার।
যার মুখে হাসি আছে তারে করো খুশি
বুকে যার ব্যথা আছে তারে মার ঘুসি।
বাঁকা চোখে ছবি এঁকে পরাও কাজল
ভেজা চোখে ছুঁড়ে দাও কটু নোনা জল।
ধনীর গোলায় ধন উড়ে এসে পড়ে
চাইলেও আসে না ধন গরীবের ঘরে।
ধনীর সাথে ধনের সদায় সদ্ভাব
গরীবের চির সাথী অসীম অভাব।
সাগরের জল যায় সাগরের বুকে
মেঘ কেঁদে বৃষ্টি ঝরে সাহারার শোকে।
ধূসর মরু সাহারা চির দিন মরু
জন্মে নাতো তার বুকে সুশোভিত তরু।