খেলাধুলা

22

 

ছোট্ট বেলায় ত্যাঁনার বলে দৌড়াদৌড়ি করি,

পড়াশোনার পাশাপাশি সুন্দর জীবন গড়ি।

একটু আধটু সময় পেলে গিয়ে নদীর জলে,

সাঁতার কাটতাম হৈ-হুল্লোড়ে ভাল লাগতো ফলে।

ইশকুল সময় ইশকুল যেতাম দিতাম না কো ফাঁকি,

মাষ্টার সাহেব আদর করে বলতো তুমি লাকী।

পড়াশোনায় ভাল হলে ভালবাসে মাষ্টার,

স্নেহ করেই বোর্ডে ডাকেন হাতে দিয়ে ডাস্টার।

রুটিন মতো পড়াশোনা তারপর খেলাধুলা,

খেলাধুলা করলে মন হয় খুবই খোলামেলা।

মোবাইল ফোনে সময় কম দেই খেলাধুলায় ফিরি,

বাজে নেশায় না যাই জড়াই যেমন গাঁজা বিড়ি!

এখন খেলার মূল্য আছে জাতীয়তে ডাকে,

ভাল হলে ভালবাসে বাবা এবং মাকে।

সুনাম হলে মা বাবারও হয় যে সাথে সাথে,

রুটি রুজির ব্যবস্থা হয় খেলাধুলার সাথে।

খেলাধুলায় জীবন গড়ি সুস্থ হয়ে বাঁচি,

ভালবাসায় থাকি দেশ- মানুষের কাছাকাছি।