বাংলাদেশ বৃহস্পতিবার 21, September 2017 - ৫, আশ্বিন, ১৪২৪ বাংলা

আসছে নির্বাচনমুখী মুদ্রানীতি

প্রকাশিত ২০:০৮ জুলাই ১১, ২০১৭

ভোটের কথা মাথায় রেখেই বাজেট ঘোষণার পর এবার আসছে নির্বাচনমুখী মুদ্রানীতি। এজন্য বাংলাদেশ ব্যাংক বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছে। এর অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার (৬ জুলাই) থেকে বিশেষজ্ঞদের মতামত নেওয়া শুরু হয়েছে। চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে এই মুদ্রানীতি ঘোষণা করবেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির।

মুদ্রানীতি প্রণয়নের সঙ্গে জড়িত বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা বলছেন, আগামী নির্বাচনকে মাথায় রেখে এই মুদ্রানীতি প্রণয়ন করা হচ্ছে। বিশেষ করে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে। যাতে নির্বাচনের আগে জিনিসপত্রের দাম না বাড়ে।

এছাড়া,আগামী ছয় মাসের জন্য যে মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হবে তাতে গুণগত বিনিয়োগের বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া হবে। কারণ, ব্যাংক আমানতের সুদ হার এখন যে কোনও সময়ের চেয়ে কম। এছাড়া ব্যাংকেও পর্যাপ্ত বিনিয়োগযোগ্য তহবিল রয়েছে। এ পরিস্থিতিতে আগামী মুদ্রানীতিতে উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগমুখী করার উদ্যোগ থাকবে।

রবিবার (৯ জুলাই) নতুন মুদ্রানীতি প্রণয়ন বিষয়ে মতামত দিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ও অর্থনৈতিক বিশ্লেষকরা। এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক শুভঙ্কর সাহা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘গত বৃহস্পতিবার (৬ জুলাই) থেকে বিশেষজ্ঞদের মতামত নেওয়া শুরু হয়েছে। রবিবারও তাদের মতামত নেওয়া হয়েছে। এ মাসের শেষের দিকে নতুন মুদ্রানীতি ঘোষণা করা হবে।’ প্রতি ৬ মাস অন্তর আগাম মুদ্রানীতি ঘোষণা করে বাংলাদেশ ব্যাংক।

জাতীয় নির্বাচনে নেতিবাচক প্রভাব পড়ার আশঙ্কায় চলতি অর্থবছরে নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন থেকে সরে আসে সরকার। ব্যাংক আমানতে আবগারি শুল্ক হারও কমিয়ে আনা হয়। মূলত আগামী নির্বাচনের কথা মাথায় রেখেই বহুল আলোচিত-সমালোচিত এই দুটি ইস্যুতে শেষ মুহূর্তে পিছিয়ে যায় সরকার। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, নতুন মুদ্রানীতির মূল চ্যালেঞ্জ হবে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ। এ প্রসঙ্গে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ড.এবি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘মূল্যস্ফীতির সঙ্গে সাধারণ মানুষের ভালোমন্দ জড়িত। এ জন্য মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ হবে নতুন মুদ্রানীতির মূল চ্যালেঞ্জ। তবে বিনিয়োগের সঙ্গে কর্মসংস্থান ও প্রবৃদ্ধি জড়িত, এ কারণে বিনিয়োগ বাড়ানোর বিষয়েও জোর দিতে হবে।’

 

বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) গবেষক ড. জায়েদ বখতও মনে করেন নতুন মুদ্রানীতির প্রধান চ্যালেঞ্জ হবে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ করা। তিনি বলেন,‘বেসরকারি খাতে ঋণ প্রবাহ বাড়ানো ও মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারলে মুদ্রানীতির সুফল অর্থনীতিতে আসবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে হলে মুদ্রানীতির পাশাপাশি বাংলাদেশ ব্যাংকের নজরদারিও বাড়াতে হবে। কারণ, হঠাৎ করে ডলারের দর বেড়ে গেলে আমদানি পণ্যের দাম বেড়ে যায়। যার নেতিবাচক প্রভাব পড়ে মূল্যস্ফীতিতে।’

গত তিন মাস ধরেই মূল্যস্ফীতি বাড়তির দিকে। সামনের বছরের শেষদিকে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। এ নির্বাচন ঘিরে এ বছর থেকেই বাজারে টাকার প্রবাহ বেড়ে যেতে পারে। আর টাকার প্রবাহ বাড়লে জিনিসপত্রের দামও বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

গত তিন মাসের মূল্যস্ফীতির সূচকে দেখা যায়, ফেব্রুয়ারিতে পয়েন্ট টু পয়েন্ট মূল্যস্ফীতি ছিল পাঁচ দশমিক ৩১ শতাংশ, মার্চে তা বেড়ে হয়েছে পাঁচ দশমিক ৩৯ শতাংশ। একইভাবে এপ্রিলে মূল্যস্ফীতি মার্চের তুলনায় বেড়ে হয়েছে পাঁচ দশমিক ৪৭ শতাংশ।

পাঁচ বছর আগেও বেসরকারি খাতের ঋণপ্রবাহের প্রবৃদ্ধি ছিল ২৫ শতাংশের ওপরে। কিন্তু বিনিয়োগে মন্দা পরিস্থিতির কারণে এই হার নেমে আসে ১১ শতাংশে। তবে গত আড়াই বছরে দেশে রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা থাকায় ঋণপ্রবৃদ্ধিতে কিছুটা বৃদ্ধি পায়। চলতি বছরের এপ্রিলের শেষে ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে সাত লাখ ৪৯ হাজার ২৪৭ কোটি টাকা। এটি আগের বছরের চেয়ে ১৬ দশমিক ২১ শতাংশ বেশি।


পাঠকের মন্তব্য (০)

লগইন করুন


এ সম্পর্কিত খবর

রোহিঙ্গাদের ত্রাণ বিতরণে ব্যাপক বিশৃঙ্খলার অভিযোগ

রোহিঙ্গাদের ত্রাণ বিতরণে ব্যাপক বিশৃঙ্খলার অভিযোগ

মায়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের মধ্যে ত্রাণ কার্যক্রমে সমন্বয়হীনতা এবং বিশৃঙ্খলার অভিযোগ তুলছেন

দেশ পরিচালনার যোগ্যতা নেই বর্তমান সরকারের : দুদু

দেশ পরিচালনার যোগ্যতা নেই বর্তমান সরকারের : দুদু

এই সরকারের দেশ পরিচালনার কোনো রকম যোগ্যতা নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভাইস চেয়াম্যান শামসুজ্জামান

মিয়ানমার সেনাদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি স্থগিত ব্রিটেনের

মিয়ানমার সেনাদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি স্থগিত ব্রিটেনের

রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর অব্যাহত সহিংসতার পরিপ্রেক্ষিতে মিয়ানমার সেনাবাহিনীদের প্রশিক্ষণ কর্মসূচি স্থগিত করেছে ব্রিটিশ সরকার।


মিয়ানমারকে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন বন্ধ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

মিয়ানমারকে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন বন্ধ করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

 প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ মানবিক কারণে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছে। মিয়ানমারকে রোহিঙ্গাদের ওপর নির্যাতন বন্ধ

রোহিঙ্গাদের হাতে অনিবন্ধিত সিম!

রোহিঙ্গাদের হাতে অনিবন্ধিত সিম!

 টেকনাফ শহরের মুঠোফোনের সিম বিক্রির ধুম পড়েছে। রমরমা ব্যবসা চলছে মুঠোফোনের দোকানগুলোতে। এসব নতুন সিম

রোহিঙ্গাদের ইস্যুতে ট্রাম্পের কাছে সহায়তার আশা নেই : শেখ হাসিনা

রোহিঙ্গাদের ইস্যুতে ট্রাম্পের কাছে সহায়তার আশা নেই : শেখ হাসিনা

: মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর নির্যাতন থেকে বাঁচতে সীমান্ত পার হয়ে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট


বদলে যাওয়া সু চি কৌশলে এড়ালেন রোহিঙ্গা নিপীড়নের অভিযোগ

বদলে যাওয়া সু চি কৌশলে এড়ালেন রোহিঙ্গা নিপীড়নের অভিযোগ

: মায়ানমারের সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের ওপর জাতিগত নিধন নিয়ে আন্তর্জাতিক চাপের মুখে শেষ পর্যন্ত মুখ

কলকাতা সফরে আইফোন হারালেন এইচ টি ইমাম

কলকাতা সফরে আইফোন হারালেন এইচ টি ইমাম

কলকাতা সফরে গিয়ে নিজের আইফোন হারিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম। একটি

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও অর্থনৈতিক অবরোধ চায় এইচআরডব্লিউ

মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও অর্থনৈতিক অবরোধ চায় এইচআরডব্লিউ

  সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর জাতিগত নিধন চালিয়ে তাদের বাংলাদেশে পালিয়ে যেতে বাধ্য করার দায়ে



আরো সংবাদ







কমছে না ক্রেডিট কার্ডের সুদহার

কমছে না ক্রেডিট কার্ডের সুদহার

০৪ অগাস্ট, ২০১৭ ১৫:১২







ব্রেকিং নিউজ








সাভারে যুবকের লাশ উদ্ধার

সাভারে যুবকের লাশ উদ্ধার

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২০:১৬